দিনযাপন | ০৪০৩২০১৫

দিনের শুরুটা যতটা বিবর্ণ ছিলো, শেষটা ততটাই চমকপ্রদ হলো …

কিন্তু, দিনযাপনের লেখার ব্যস্ততায় তাকে উদ্দেশ্য করে প্রতিদিন ডাইরিতে কিছু লেখার রুটিনটা ব্যাহত হচ্ছে । দিনযাপনের পাতায় যা লিখি তার বেশিরভাগই যে তাকে লেখা হতো সেটা যেমন ঠিক, তেমনি তাকে যা যা লিখতাম তার সব যে দিনযাপনের পাতায় লিখি না সেটাও ঠিক … তার প্রতি আমার বক্তব্য অনেক ব্যক্তিগত, অনেক বেশি সরাসরি তাকে কথা বলার মতো … আর দিনযাপনের কথা আমার নিজের মনের ভেতরের গুটি পাকানো চিন্তা-ভাবনার সার সংক্ষেপ।

তাকে উদ্দেশ্য করে ডাইরি লেখার বিষয়টা শুরু করেছি এ বছরের শুরু থেকে। আরও আগে থেকেই কেন সেটা শুরু করিনি সেটা ভাবলেও কষ্ট হয়। ডাইরিতে মনের কথা খুলে লেখার মধ্যে অনেক প্রশান্তি … যাই হোক, এখন লিখি। প্রতিদিনই কিছু না কিছু লিখি। এক বছর আগে এই দিনটাতে কি হয়েছিলো আমাদের দু’জনের, কিংবা কি হয়নি … আজকে কি হলো বা কি হলো না … এখন যে তার সাথে আমার কোনো যোগাযোগ নেই, এখন আমার দিনগুলো কেমন যায় … এসব কিছু … তাকে মন খুলে যে কথাগুলো বলতে পারিনি, বলতে পারি না, সেগুলো ডাইরিতে লিখে রাখি …

কি জানি, এই ডাইরি লেখার বিষয়টাও যদি সে জানে তাহলে হয়তো সেটা নিয়েও একটা তুলকালাম করবে! আমি জানি না, এখন আমার ফেসবুক, ইন্সটাগ্রাম কিংবা ব্লগের অ্যাক্টিভিটি দেখার কোনো উপায় তার আছে কি না … কিংবা অতটা গরজও সে দেখায় কি না … একসময়, সেই সম্পর্ক শুরুর প্রথম দিকে সে অবশ্য হঠাৎ খেয়ালের বশেই হোক আর ইচ্ছে করেই হোক আমার ব্লগ -এ ঢুঁ মারতো … আমার মনে আছে, গত বছর এরকমই একটা সময়ে আমার একটা ব্লগ পোস্টে প্রেম সংক্রান্ত কথাবার্তা পড়ে সে সেসব কথার ব্যাখ্যা চেয়েছিলো যে কেন এভাবে লিখেছি। অবশ্য তার কিছুক্ষণ আগেই সে আমাকে আউট অব নো হোয়্যার জিজ্ঞেস করেছিলো যে আমি তার সাথে রিলেশনে যেতে ইন্টেরেস্টেড কি না … আমিও ইন অ্যান ইনস্ট্যান্ট হ্যাঁ বলেছিলাম … তারপরই সে ব্লগে লেখা সেসব কথার ব্যাখ্যা চেয়েছিলো … আমার অবশ্য মনে নেই আমি ঠিক কি ব্যাখ্যা দিয়েছিলাম … কারণ, ওখানে যা লিখেছিলাম তা ছিলো তার সাথে আমার সম্পর্ক সংক্রান্ত ভাবনা শুরু হবারও আগের চিন্তা-ভাবনার প্রতিফলন। পরদিন রাতেও তার সাথে আমার অনেক কথা হয়েছিলো সম্পর্ক ইত্যাদি নিয়ে আর সকালে ঘুম থেকে উঠে সে খুব দ্বন্দ্ব দেখিয়ে বলেছিলো যে আসলে আমার সাথে রিলেশনে যাবে কি না সেটা নিয়ে সে কনফিউজড, কারণ এই সমস্যা, ওই সমস্যা … সমস্যাগুলো আমার কাছে যুক্তিহীন মনে হয়নি, তাই আমিও আর যুক্তি-তর্কে যাই নি … সেসময়ের জন্য মেনে নিয়েছিলাম যে আপাতত রিলেশন এ যাওয়া হচ্ছে না … যাই হোক, পুরনো কথা এখন বাদ দেই! … ওসব কথায় কেবল কথাই বাড়ে …

আসলে সম্পর্ক বিষয়টাই জানি কেমন! সেটা পরিবার হোক, বন্ধুত্ব হোক আর প্রেম-ভালোবাসাই হোক … একটা মানুষের সাথে আরেকটা মানুষের যোগাযোগের সম্পর্কটাই তো কেমন অদ্ভুত। আমি যার সাথে মিশছি, তার সাথে আমার সঙ্গের প্রেক্ষিতে আমার প্রতিদিনের প্রতিমুহুর্তের অভিজ্ঞতাগুলো নির্মিত হচ্ছে … এখন এই মুহুর্তে আমি বাসায় নিজের ঘরে বসে কাজ করছি, কিন্তু এখন যদি আমি আমার কোনো বন্ধুর বাসায় থাকতাম, তাহলে আমার অভিজ্ঞতাগুলো হতো অন্যরকম … কি অদ্ভুত আমাদের এই জীবনযাপন! … আর সেখানে আমি সম্পর্কের এই রাজনীতিগুলো কখনোই বুঝিনি … ইনফ্যাক্ট বোঝার চেষ্টাই করিনি … যখন বুঝতে চেষ্টা করেছি, তখনই সবকিছু ওলটপালট করে ফেলেছি … আর যেখানে কিছু না বুঝতে চেয়ে সরলরৈখিকভাবে চলেছি, সেখানে সম্পর্কও একরকম রেখা মেনেই চলেছে …

কিন্তু সবসময় কি আসলে সব সম্পর্ক না বুঝে চলার চেষ্টা করা যায়? … কি জানি! জানি না! বুঝি না! … বুঝতে যাই ও না … বুঝতে গেলেই তো মাথার ভেতর প্রচণ্ড যন্ত্রণা হয় …

আজকে অনেক ক্লান্ত লাগছে … লিখতেও এনার্জি পাচ্ছি না … অলরেডি রাত বাজে দুইটা … সকালটা কিভাবে শুরু হবে এখনো জানি না …

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s